বরিশালে মাদ্রাসার ছাত্রীকে গণধর্ষণ ॥ গ্রেফতার-২

0
36

বরিশালে মাদ্রাসার ছাত্রীকে গণধর্ষণ ॥ গ্রেফতার-২
স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ জেলার গৌরনদী উপজেলায় মাদ্রাসায় পড়–য়া নবম শ্রেনির ছাত্রীকে তিন বন্ধু মিলে গণধর্ষনের অভিযোগে সোমবার সকালে দুই কলেজ ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পালিয়ে যাওয়া বাকি একজনকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো-শেরপুর সদর থানার কালিয়াপাড়া গ্রামের আব্দুর রহমান কামারের পুত্র সরোয়ার হোসেন (২১) ও গাইবান্ধা সদর উপজেলার নশরতপুর গ্রামের মোকসেদুল হক সরদারের পুত্র মাহফুজুর রহমান সাদিক (১৮)। পালিয়ে যাওয়া গ্রেফতারকৃতদের অপর বন্ধু হলো-পটুয়াখালীর গলাচিপা থানার রতনদিয়া ইটবাড়িয়া গ্রামের মোশারফ হোসেনের পুত্র সাজ্জাদ হোসেন শাওন (১৯)। তারা সবাই স্থানীয় একটি টেক্সটাইল ইনইস্টিটিউট কলেজের ছাত্র।
গৌরনদী মডেল থানার এসআই মোঃ সগীর হোসেন জানান, সোমবার সকালে উপজেলার দক্ষিণ বিজয়পুর গ্রামের গনি বেপারীর ভাড়াটিয়া বাসা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা বাদি হয়ে তিন ধর্ষকের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এজাহারে জানা গেছে, বিজয়পুর এলাকার বাসিন্দা ও স্থানীয় একটি মাদ্রাসার নবম শ্রেনীতে পড়ুয়া ওই ছাত্রী মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে কলেজ ছাত্র সাজ্জাদ হোসেন শাওনের সাথে তার পরিচয় হয়। কয়েকদিন পূর্বে শাওন তার অসুস্থ্যতার কথা বলে ওই ছাত্রীকে গনি বেপারীর ভাড়াটিয়া বাসায় ডেকে নিয়ে যায়। এসময় জুসের সাথে কৌশলে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে ওই ছাত্রীকে পালাক্রমে উল্লেখিত তিন বন্ধু গণধর্ষন করে। পরবর্তীতে ধর্ষনের চিত্র মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে বিভিন্ন সময় ওই ছাত্রীকে ওই তিনজনে ধর্ষণ করে আসছিলো।
গৌরনদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রব হাওলাদার বলেন, বিষয়টি ওই ছাত্রী তার মাকে জানানোর পর সোমবার সকালে তার মা থানায় মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে তাৎক্ষনিক পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুইজনকে গ্রেফতার করলেও কৌশলে অপর একজন পালিয়ে যায়। তাকে গ্রেফতারের জন্যও পুলিশের অভিযান চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here